পল্লী বিদ্যুৎ মিটারের জন্য অনলাইনে আবেদন পদ্ধতি । পল্লী বিদ্যুৎ মিটার আবেদন ফি কত জেনে নিন

অনলাইনে আবেদন- অনলাইনে নতুন বিদ্যুৎ সংযোগের আবেদন করতে উল্লেখিত লিংকে ক্লিক করে চাহিত তথ্য/ ফরম পূরন করে সাবমিট করতে হবে এবং উহা প্রিন্ট করে নির্ধারিত স্থানে সাক্ষর করে প্রয়োজনীয় কাগজ পত্রাদি সংযুক্ত করে অফিসে জমা প্রদান করতে হবে। http://www.rebpbs.com

আবাসিক সংযোগের ক্ষেত্রে আবেদন করার নিয়মাবলী কি? আবেদন করার সময় ছবি, জাতীয় পরিচয় পত্র ও সংযোগস্থলের খারিজের স্ক্যান কপি সংযুক্ত করতে হবে। সার্ভিস ড্রপের দুরত্ব (সংযোগস্থল হইতে সার্ভিস পোলের দুরত্ব)১৩০ ফুটের মধ্যে হতে হবে। সঠিক ভাবে মেপে সার্ভিস ড্রপের দুরত্ব প্রদান করুন। সার্ভিস ড্রপের দুরত্ব সঠিক না হলে তারের দৈর্ঘ্য কম/বেশি পারে। ভুল তথ্য দিলে পরবর্তীতে সংযোগ পেতে বিলম্ব হতে পারে।মোট লোড ৮০ কিলোওয়াট এর বেশি হলে এইচটি সংযোগের নিয়মাবলী প্রযোজ্য হবে। অনলাইনে সার্ভে করার পর প্রয়োজনীয় অর্থ (আবেদন ফি, মেম্বারশীপ ফি ও নিরাপত্তা জামানত) জমাদানসহ সকল নির্দেশনা এসএমএস এর মাধ্যমে জানানো হবে। আবেদন ফরমের লাল(*) চিহ্নিত ক্ষেত্রগুলো অবশ্যই পূরন করতে হবে। আবেদন পত্রে গ্রাহকের নিজস্ব মোবাইল নম্বর প্রদান করুন। আবেদনের পর প্রাপ্ত ট্র্যাকিং আইডি এবং পিন নম্বর অবশ্যই সংরক্ষণ করতে হবে। সংযোগের অর্থ ডাচবাংলা ব্যাংকের মোবাইল ব্যাংকিং (রকেট) এর মাধ্যমে পরিশোধ করা যাবে। ডাচবাংলা ব্যাংকের মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে ফি পরিশোধ করার জন্য নিচে নিয়মাবলী দেখে নিন।

আবাসিক নতুন বিদ্যুৎ সংযোগের জন্য প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টের তালিকাঃ(ক) জাতীয় পরিচয় পত্র ০১ (এক) কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে);(খ) জমির মালিকানা দলিল বা লিজ ডিড বা নামজারীর কাগজ, মূল মালিক না থাকলে উত্তরাধিকার সনদ;(গ) পূর্বের সংযোগ থাকলে পরিশোধিত বিলের কপি (একই নামে বা স্থানে আরো সংযোগ নিতে নতুন করে আর কোন ডকুমেন্ট লাগবে না);(ঘ) বহুতল ভবনের ক্ষেত্রে (১০ তলার অধিক) অগ্নি নির্বাপক সনদ;(ঙ)রাজউক/সিডিএ/কেডিএ/আরডিএ এবং অন্যান্য ক্ষেত্রে সিটি কর্পোরেশন/পৌরসভার অনুমোদিত বিল্ডিং প্ল্যান,হোল্ডিং নম্বর (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে)।

[বিঃ দ্রঃ আবাসিক গ্রাহকের লোড ৫০ কিলোওয়াটের উপর হলে প্রধান বিদ্যুৎ পরিদর্শকের দপ্তরের উপকেন্দ্র চালূর অনুমোদন পত্র]বাণিজ্যিক নতুন বিদ্যুৎ সংযোগের জন্য প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টের তালিকাঃ(ক) জাতীয় পরিচয় পত্র ০১ (এক) কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে);খ) জমির মালিকানা দলিল বা লিজ ডিড বা নামজারীর কাগজ, মুল মালিক না থাকলেউত্তরাধিকার সনদ;(গ) পূর্বের সংযোগ থাকলে পরিশোধিত বিলের কপি (একই নামে বা স্থানে আরো সংযোগ নিতে নতুন করে আর কোন ডকুমেন্ট লাগবে না);(ঘ) বাণিজ্যিক ভবনের (১০ তলার অধিক) ক্ষেত্রে অগ্নি নির্বাপক সনদ;(ঙ)রাজউক/সিডিএ/কেডিএ/আডিএ এবং অন্যান্য ক্ষেত্রে সিটি কর্পোরেশন/পৌরসভার অনুমোদিত বিল্ডিং প্ল্যান,হোল্ডিং নম্বর (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে);(চ) এইচটি সংযোগের ক্ষেত্রে প্রধান বিদ্যুৎ পরিদর্শকের দপ্তরের উপকেন্দ্র চালূর অনুমোদন পত্র লাগবে।

মিটার পাওয়ার নিয়ম সঠিকভাবে অনুসরণ করতে হবে / ফি নগদ বা অনলাইনে জমা দিতে হবে

নতুন সংযোগ/এলটি এ- (আবাসিক)ওএলটি বি (সেচ)

পল্লী বিদ্যুৎ মিটারের জন্য অনলাইনে আবেদন পদ্ধতি । পল্লী বিদ্যুৎ মিটার আবেদন ফি কত জেনে নিন

Caption: Check Details

পল্লী বিদ্যুৎ আবেদন ফি । কত টাকা রকেটে জমা দিতে হবে?

  • আবেদনঃ আবেদন ফি=১০০ (একশত) টাকা
  • নিরাপত্তা জামানত(i) ০২ কিলোওয়াট পর্যন্ত ৪০০ (চারশত) টাকা প্রতি কিলোওয়াটi i) ০২ কিলোওয়াট উর্দ্ধেঃ ৬০০ (ছয়শত) টাকা প্রতি কিলোওয়াট

শিল্প ক্ষেত্রে কি কি ডকুমেন্ট লাগবে?

শিল্প সংযোগের জন্য প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টের তালিকাঃ(ক) জাতীয় পরিচয় পত্র ১ (এক) কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে);খ) জমির মালিকানা দলিল বা লিজ ডিড বা নামজারীর কাগজ, মুল মালিক না থাকলেউত্তরাধিকার সনদ;গ) পূর্বের সংযোগ থাকলে পরিশোধিত বিলের কপি (একই নামে বা স্থানে আরো সংযোগ নিতে নতুন করে আর কোন ডকুমেন্ট লাগবে না);ঘ)রাজউক/সিডিএ/কেডিএ/আডিএ এবং অন্যান্য ক্ষেত্রে সিটি কর্পোরেশন/পৌরসভার অনুমোদিত বিল্ডিং প্ল্যান,হোল্ডিং নম্বর (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে);ঙ) শিল্প সংযোগের ক্ষেত্রে লোড ৫০ কিলোওয়াট এর অধিক হলে প্রধান বিদ্যুৎ পরিদর্শকের দপ্তরের উপকেন্দ্র চালুর অনুমোদন পত্র ও অগ্নি নির্বাপক সনদ লাগবে।শিক্ষা প্রতিষ্ঠান/ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান/সেবামূলক প্রতিষ্ঠান/হাসপাতালে সংযোগের জন্য প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টের তালিকাঃ(ক) জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি (প্রতিষ্ঠানের মনোনীত ব্যক্তির);(খ) জমির মালিকানা দলিল বা লিজ ডিড বা নামজারীর কাগজপত্র;(গ) পূর্বের সংযোগ থাকলে পরিশোধিত বিলের কপি (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে);(ঘ) রাজউক/সিডিএ/কেডিএ/ আডিএ এবং অন্যান্য ক্ষেত্রে সিটি কর্পোরেশন/পৌরসভার অনুমোদিত বিল্ডিং প্ল্যান,হোল্ডিং নম্বর (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে);(ঙ) বহুতল ভবনের (১০ তলার অধিক) ক্ষেত্রে অগ্নি নির্বাপক সনদ (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) লাগবে;সামাজিক বা বাণিজ্যিক কর্মকান্ড বা নির্মাণ কাজের জন্য অস্থায়ী সংযোগের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টের তালিকাঃ(ক) পাসপোর্ট সাইজের ছবি (প্রতিষ্ঠানের মনোনীত ব্যক্তির)(খ) জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি (প্রতিষ্ঠানের মনোনীত ব্যক্তির)(গ) সামাজিক বা বাণিজ্যিক কর্মকান্ডের জন্য কর্তৃপক্ষের অনুমতিপত্র;(ঘ) ডেভেলপার কর্তৃক ভবন নির্মান করা হলে ভূমির মালিক কর্তৃক প্রদত্ত পাওয়ার অব অ্যাটর্নি।

admin

I am a web developer who is working as a freelancer. I am living in Tangail, Google SEO is a fantasy to me, I can help you to do your website promote in google first page by SEO Service. You can check me at technicalalamin.com

admin has 418 posts and counting. See all posts by admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *